আমার সম্পাদক জীবন

সেই স্কুলবেলায় রাঙামাটি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রাত:শাখার দেয়ালিকা ও স্কুলম্যাগাজিন সম্পাদনার কাজে জড়িত থাকার অভিজ্ঞতা নিয়েই ক্লাস নাইনেই বন্ধুরা মিলে প্রথম প্রকাশ করা হাতে লেখা ছোট কাগজ ‘সূচনা’ এবং ‘নবদিগন্ত’। এরপর কলেজে ঢুকেই একের পর এক দেয়ালিকা প্রকাশ,সাহিত্য পত্রিকা ‘মৃত্তিকা’, ছাত্র ইউনিয়নের প্রকাশনা ‘শৃংখল’ ও ‘জাগরণ’ এর সম্পাদনা আজকের ফজলে এলাহীর সম্পাদক হিসেবে নির্মাণের পথে মূল পাথেয়। এরপর পহেরা বৈশাখ উদযাপন কমিটির ‘উদয়াচল’র সম্পাদনা ছিলো ব্যতিক্রমি এক কাজ।

তবে সবচে সাড়া জাগানো সম্পাদনা ছিলো পার্বত্য চট্টগ্রামের স্কুল পড়ুয়াদের পত্রিকা ‘স্কুলবেলা’র সম্পাদনা। ২০০৩ সালে প্রকাশিত পত্রিকাটির প্রথম কয়েকটি সংখ্যায় সম্পাদক হিসেবে জসীমউদ্দীন ও নির্বাহী সম্পাদক হিসেবে ফজলে এলাহী দায়িত্ব পালন করলেও পরে সম্পাদক হিসেবে দায়িত্বভার নেন ফজলে এলাহী এবং এ অবধি ২৯ টি সংখ্যা বের হয়েছে পাহাড়ের একমাত্র শিশুতোষ জনপ্রিয় এই পত্রিকাটির। একই সময়ে পার্বত্য চট্টগ্রামের শিল্প সাহিত্যের ছোট কাগজ ‘পার্বত্য পুরাণ’ এর সম্পাদনাও ছিলো গুরুত্বপূর্ণ একটি কাজ। পাহাড়ের লেখক সাহিত্যিকদের কাছে জনপ্রিয় এই পত্রিকাটির চারটি সংখ্যা প্রকাশিত হয়েছে।
পার্বত্য রাঙামাটির স্থানীয় পত্রিকা দৈনিক রাঙামাটিতে প্রায় দুইবছর নির্বাহী সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি।

২০১৪ সালে এই সম্পাদকের সম্পাদনায় প্রকাশিত হয় অনিয়মিত পত্রিকা ‘কার্পাসমহল’, সম্ভবত পার্বত্য জনপদের সবচে সাড়াজাগানো সাময়িকী এটি। একটি সংখ্যা প্রকাশিত হলেও এই সংখ্যায় প্রকাশিত সংবাদের জের করে মামলা,মামলা প্রত্যাহারসহ নানা কারণে আলোচিত হয় কার্পাসমহল।
কার্পাসমহল’র পথ ধরেই পার্বত্য চট্টগ্রামের সম্পূর্ণ এবং পেশাদার অনলাইন পত্রিকা পাহাড়টোয়েন্টিফোর ডট কম যাত্রা শুরু করে একই বছরে, একই সম্পাদকের হাত ধরে। পার্বত্য চট্টগ্রামের সবচে বেশি পঠিত এবং বিশ্বস্তু অনলাইন পোর্টাল হিসেবে পাঠকনন্দিত এই পত্রিকাটি ইতোমধ্যেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছুঁয়েছে সবচে বেশি পাঠকের লাইকের লক্ষ্যমাত্রা।

পাহাড়টোয়েন্টিফোর এর সফলতার পর ২০১৫ সালে ফজলে এলাহীর সম্পাদনায় আটাশ বছর পর পার্বত্য রাঙামাটিতে যাত্রা শুরু করে আরো একটি নতুন পত্রিকা,দৈনিক পার্বত্য চট্টগ্রাম। মাত্র দুই বছরেই যে পত্রিকাটি এখন রাঙামাটির সর্বাধিক প্রচারিত দৈনিক।

সেই স্কুলজীবনের কৈশর বয়সে সম্পাদনার গুরুদায়িত্ব পালন করা ফজলে এলাহী,চল্লিশের কোটায় এসে সম্পাদক হিসেবে কতটা সফল হয়েছে কিংবা ব্যর্থ তার নির্ধারণ করবে ইতিহাসই। হয়তো আগামী প্রজন্মের মূল্যায়নেই নির্ধারিত হবে সেই মানদন্ড…….

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

2 × 5 =